শুধুমাত্র ভারতীয় পাসপোর্ট দেখালেই মিলবে নাগরিকত্ব এমন 5টি দেশের তালিকা

ভারতবর্ষ আমাদের দেশ, আমাদের মাতৃভূমি।  এই পৃথিবীতে ভারতের চেয়ে সুন্দর আমার মতে কোনো দেশ নেই। 

তবে তার মধ্যেই  এমন অনেকেই  রয়েছেন যারা ভারত ছেড়ে অন্য দেশে স্থায়ী হওয়ার স্বপ্ন দেখেন। আর ব্যক্তিগত পর্যায়ে এটা কোনো অপরাধ তো নয়ই।  প্রতিবছরই ভারত থেকে লক্ষ লক্ষ লোক চাকরি, পড়াশোনা ও পর্যটনের জন্য বিদেশে যায়। আবার  এর মধ্যে অনেকেই আছেন, যারা বিদেশে স্থায়ী ভাবে বসবাসের ইচ্ছা প্রকাশ করেন। স্থায়ীভাবে বসবাসের সঠিক সুযোগ  ও ধারনা না থাকায় আনেকেই  স্বপ্ন দেখলেও সহজে ভিসা না পেয়ে হতাশ হয়ে শেষে ভারতেই আবার ফিরে আসেন। 


আজ আমরা বলবো বিশ্বের এমন পাঁচটি দেশের কথা যেখানে আপনি শুধুমাত্র আপনার ভারতীয় পাসপোর্টের সাহায্যে পেয়ে যাবেন সেখানে পাকাপাকি বসবাসের উপায়।  অর্থাৎ  শুধুমাত্র ভারতীয় পাসপোর্ট দেখালেই মিলবে নাগরিকত্ব

তাহলে আর দেরি করে লাভ কী, চলুন জেনে নেওয়া যাক

 বিশ্বের সেরা ও সুন্দর ৫ টি দেশ যেখানে শুধুমাত্র ভারতীয় পাসপোর্ট দেখালেই মিলবে নাগরিকত্ব


তবে শুরু করার আগে বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আর নতুন পোস্ট বা আর্টিকেল এর ইমেইল নোটিফিকেশন পাওয়ার জন্য আপনি এখানে ক্লিক করতে পারেন। ক্লিক করার পর আপনার নাম ও ইমেইল দিয়ে সাবমিট করে দেবেন


২৮% ডিসকাউন্টে দেখুন তো আপনার কোন মোবাইলটা পছন্দ ?


কোস্টারিকা

মধ্য আমেরিকার দেশ কোস্টা রিকা (Costa Rica) এখানে আপনি পাবেন উন্মুক্ত আকাশ, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও শান্ত বিকেল। তবে এখানে পাকাপাকি থাকতে আপনাকে প্রায় 3000 ডলারের মতো খরচ করতে হবে। 

Costa Rica এর বিষয়ে একটা জিনিস যা আমার খুব ভালো লেগেছে , এখানে প্রত্যেক নাগরিকের থাকে Caja (Costarricense de Seguro Social )  যা একটি সরকারি স্বাস্থ্যবমা । caja এর সাহায্যে Costa Rica এর সকল নাগরিক একেবারে বিনামূল্যে যেকোনো রকম স্বাস্থ্য পরিচর্যা,  পরীক্ষা, অপারেশন, ও ওষুধ পেতে পারেন। এর জন্য কোনো অতিরিক্ত খরচ করতে হয় না ।

আর একটা বিষয়,  Costa Rica এর সরকারি ভাষা স্প্যানিশ।  সুতরাং স্প্যানিশ ভাষায় একটু দখল আপনার থাকাটা খুব জরুরী।

 3000 ডলার মানে প্রায় 225000 ভারতীয় টাকা। আর এই টাকা বাচানোর একটি উপায় আছে। যদি আপনি  অস্ট্রিয়াতে স্থায়ী হওয়ার জন্য আবেদন করেন, তাহলে আপনাকে প্রথমে একটি ডি-ভিসা প্রদান করা হবে, যার দ্বারা আপনি প্রথমে ৬ মাসের জন্য অস্ট্রিয়াতে থাকার অনুমতি পেয়ে যাবেন। এর পরেই আপনি চাইলে costa Rica তে স্থায়ী বাসিন্দার জন্য আবেদন করতে পারেন বিনামূল্যে।

আপনি আরও পড়তে পারেন ঃ প্যারিসের দশটি মজাদার, আকর্ষণীয়, এবং অজানা দুর্দান্ত ফ্যাক্ট।

বেলিজ

বেলিজ বসবাসের জন্য খুব সুন্দর এবং আরামদায়ক দেশ। এখানে যে কোন ভারতীয় শুধুমাত্র ভারতীয় পাসপোর্টের ভিত্তিতে ৩০ দিনের জন্য ভিজিটর ভিসায় থাকতে পারেন। তবে এই সময় শেষ হলে, সেটি আবার পুনর্নবীকরণ করা যেতে পারে। এবং প্রায় ৫০ সপ্তাহের জন্য ভিসা বাড়ানো সম্ভব। এরপর এখানের স্থায়ী বাসিন্দা হতে চাইলে, ৫০ সপ্তাহ থাকার পর ১০০০ ডলার দিতে পারলেই আপনি ওই দেশের বাসিন্দা হতে পারবেন।

বেলজিয়াম

আপনি কি বরফ ভালোবাসেন ? সঙ্গে  আপনি শীত ও পছন্দ করেন ? তাহলে বেলজিয়াম আপনার জন্য সেরা একটি দেশ। সারা বিশ্বের পর্যটকরা বেলজিয়ামে বেড়াতে আসে। এখানকার তুষারপাতের সৌন্দর্য দেখতে প্রায় সারা বছর এখানে পর্যটকের ভীড় থাকে। বেলজিয়ামের  নাগরিকত্ব পেতে আপনাকে হয়তো একটু বেশি টাকা খরচ করতে হতে পারে। বেলজিয়ামের নাগরিকত্ব পাওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় এখানে কোনো বড় কোম্পানিতে  চাকরি করা। আপনি যদি মাত্র দুই  সপ্তাহ বেলজিয়ামে কাজ করেন, তাহলে আপনি সহজেই বেলজিয়ামের  নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবেন। কিন্তু কত টাকা লাগবে তার কোন সঠিক মানচিত্র আমাদের কাছে নেই।

ইকুয়েডর

এখানেও আপনি পাবেন সুন্দর পর্বত, প্রাকৃতিক সৈকত, আগ্নেয়গিরি, ও বিভিন্ন ধরনের সুন্দর পশুপাখির সঙ্গ। আর এরা সকলে মিলে এই দেশকে মোহময়ী প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরিয়ে তুলেছে। এখানে পর্যটকদের ভিড় তেমন হয় না। আপনি যদি শান্তিপ্রিয় মানুষ হন ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে এক মনে আপনার কাজ করে যেতে চান তবে এই দেশটি আপনার জন্য সেরা দেশ হতে পারে। এখানেও আপনি প্রতি মাসে মাত্র ৮০০ ডলার খরচে একেবারে নির্ঝঞ্ঝাট জীবন কাটাতে পারবেন। আর আপনার আরামে বাধা কেউ দেবে না।

আপনি আরও পড়তে পারেন ঃ কলকাতার মজাদার ও আকর্ষণীয় ফ্যাক্ট

অস্ট্রিয়া

এই তালিকায় অস্ট্রিয়ার নাম দেখে অবাক হবেন না। সত্যিই ভারতের নাগরিক হলে অবশ্যই নির্দ্বিধায় আপনি অস্ট্রিয়াতে স্থায়ীভাবে বসতি স্থাপনের আবেদন করতে পারেন।  

কিন্তু টাকা খরচের হিসেব করতে গেলে আর হবে না। আপনি যদি অস্ট্রিয়াতে স্থায়ী হওয়ার জন্য আবেদন করেন, তাহলে আপনাকে যা করতে হবে তা হলো, আপনাকে প্রথমে একটি ডি-ভিসা প্রদান করা হবে। সেই ভিসা দ্বারা আপনি  ৬ মাসের জন্য অস্ট্রিয়াতে থাকার অনুমতি পেয়ে যাবেন। এর পরেই আপনি অস্ট্রিয়া স্থায়ী বাসিন্দার জন্য আবেদন করতে পারবেন ও সব ঠিক থাকলে আপনাকে অস্ট্রিয়ার নাগরিকত্ব দেওয়া হবে।

click to get free headphone*

(*get free headphones is an affiliate link to amazon, and subject to apply in stock availability and t&c apply)

কেমন লাগলো আপনার আমাদের প্রতিবেদন ? কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন। আমাদের facebook page ফলো করতে ভুলবেন না। বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করুন, যদি আপনার ভালো লেগে থাকে। আর যেকোনো নতুন পোস্ট বা আর্টিকেল এর ইমেইল নোটিফিকেশন পাওয়ার জন্য আপনি এখানে ক্লিক করতে পারেন। ক্লিক করার পর আপনার নাম ও ইমেইল দিয়ে সাবমিট করে দেবেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ