10 amazing facts about paris in bengali

প্যারিস হলো আলোর শহর। খুবই জনপ্রিয় ইউরোপীয় রাজধানী শহর।

প্যারিস শুধুমাত্র তার শিল্প, সংস্কৃতি, স্থাপত্য এবং ইতিহাসের জন্য যেমন জনপ্রিয় ।তেমনি প্যারিস রোম্যান্সের জন্য জনপ্রিয়। শহরের বিভিন্ন কোনায় ভালোবাসার প্রচুর অদ্ভুত আবেদন ও গোপনীয়তা রয়েছে যা প্যারিসে আরো বেশি আকর্ষণীয় করে তোলে।

আজ আমরা এই প্যারিস নিয়েই আমাদের আলোচনায় বসবো। দেখে নেবো দারুণ মজাদার, আকর্ষণীয়, এবং অজানা দশটি দুর্দান্ত ফ্যাক্ট। 

চলুন তাহলে ভূমিকা ছেড়ে চটপট দেখে নিন প্যারিসের দশটি মজাদার, আকর্ষণীয়, এবং অজানা দুর্দান্ত ফ্যাক্ট। 

1. The Louvre Museum কত বড় ?

বছরে প্রায় নয় মিলিয়নের ও বেশি দর্শকের আগমন ঘটে Louvre Museum এ।দর্শকের সংখ্যার দিক থেকে  Louvre Museum পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় মিউজিয়াম। এখানে আছে বিশ্বক্ষ্যাত  মোনালিসার বাড়ি।রয়েছে 35 হাজারের বেশি শিল্পকর্ম।  

Louvre Museum এর সংগ্রহের তালিকাও বেশ বড়।  প্রায় 4,60,000 টি জিনিস রয়েছে তাদের সংগ্রহে।

তার মানে যদি আপনি Louvre Museum এর সমস্ত কিছু দেখতে চান ও এক একটি জিনিসের জন্য মাত্র হাফ মিনিটের সময় ধার্য করেন, তবুও আপনার পুরোটা শেষ করতে 35 দিনের বেশি লাগবে।

2. আইফেল টাওয়ার (Eiffel Tower) কেন তৈরি করা হয়েছিল ?

বিশ্বাস করুন বা না করুন, প্যারিসের সবচেয়ে আইকনিক বিল্ডিং আইফেল টাওয়ার শুধুমাত্র একটি অস্থায়ী স্মৃতিস্তম্ভ হিসেবেই তৈরি করা হয়েছিল ।ফ্রান্স সরকার আইফেল টাওয়ারকে তৈরি করেছিল উন্নত প্রযুক্তি এবং নির্মাণ দক্ষতা প্রদর্শনের জন্য ।তবে তার জন্য অনেক ভুগতেও হয়েছিল ফ্রান্স সরকারকে।

1889 সালে যখন আইফেল টাওয়ার নির্মাণ  হয়েছিল, তখন এটি ছিল অত্যন্ত অজনপ্রিয় একটি পর্যটন কেন্দ্র।  সাধারন নাগরিক থেকে প্রবীণ ব্যক্তিরা এর বিরুদ্ধে তীব্র  প্রতিবাদ করেছিলেন সেই সময়। এমনকি মিডিয়াও আইফেল টাওয়ারকে  'অর্থক দানব' বলে অভিহিত করেছিল। কিন্তু আজ আইফেল টাওয়ার পৃথিবীর সাত আশ্চর্যের একটি। ঠিক একই জিনিস  আমাদের দেশের Statue of unity এর বেলায়ও দেখা যাচ্ছে।   

3. পুরো প্যারিস শহরের রাস্তায় মাত্র  একটি স্টপ সাইন আছে ?

সর্বাধিক জনবহুল ইউরোপীয় রাজধানী হওয়ার পরও, প্যারিসের পুরো রাস্তায় মাত্র  একটি স্টপ সাইন রয়েছে। আপনি প্যারিসের যে রাস্তা দিয়েই যান না কেন আপনি নো এন্ট্রি পাবেন না সারা শহর জুড়েই। এবং হয়তো এই কারণেই প্যারিসে যতটা ট্রাফিক জ্যাম হওয়ার কথা তার থেকে অনেক কম ট্রাফিক হয়।

4.আপনি প্যারিসে  ফাঁসিকাঠের খোঁজও পেয়ে যেতে পারেন 

আপনি কি খোলা সরকের মোরে কখনো ফাঁসিকাঠ দেখেছেন ? উত্তেজিত হওয়ার দরকার নেই, আপনি প্যারিসে রোকেট(Roquette) এবং লা ক্রোক্স-ফুবিন (La Croix-Faubin) স্ট্রিটের কোনে পাঁচটি কংক্রিটের পিলার দ্বারা একটি ফাঁসিকাঠের খোঁজ পেতে পারেন। 

1851 সাল নাগাদ এই ফাঁসিকাঠে সাধারণ দোষীদের জনসমক্ষে ফাঁসি কার্যকর করা হতো। বাকি জনগণের মধ্যে শাস্তির ভয় প্রচারিত করার জন্য এই ব্যবস্থা করা হয়েছিল।

5. প্যারিস শহরে একটি বিশাল সূর্যঘড়ি (Sundial) আছে 

প্লেস দে লা কনকর্ড স্কোয়ারে (Place de la Concorde square) 23 মিটার উচ্চ স্মারক স্তম্ভ সাধারণ কোনো বিস্ময় নয়। বেশিরভাগ প্যারিসবাসী এই সূর্যঘড়ি উপেক্ষা করে, কিন্তু তারা হয়তো ভুলে গেছে যে উনিশ শতকের ফ্রান্সের ঘনিষ্ঠ বন্ধু মিশর এই অনন্য জিনিটি ফ্রান্স কে উপহার স্বরূপ দিয়েছিল।

6. প্যারিসে  সবচেয়ে পুরনো সেতু New bridge 

পন্ট নেউফ (Pont Neuf New Bridge ) এখন ফরাসি রাজধানীর প্রাচীনতম সচল সেতু।  কিন্তু যখন এই সেতু নির্মাণ করা হয় ,তখন প্যারিসে  প্রথম পাথরের সেতু ছিল এটি। তাই এর নাম new bridge বা নতুন সেতু হয়ে গেছে। কিন্তু আদতে এটিই প্যারিসের সবচেয়ে পুরনো চলমান সেতু। তার যুগের অন্য সব সেতু এখন আর দাঁড়িয়ে নেই।

7. প্যারিসের নদী তীরে  

সেইন নদীর তীরে অবস্থিত সুইমিং স্পট ও সৈকতগুলি প্রমাণ করে যে প্যারিসই পারে এমন একটি বিনোদনের উৎস তৈরি করতে।

ভলিবল, বেসবল, সার্ফিং চারিদিকে নানান রঙের খেলা যা আপনার মাথা ঘুরিয়ে দিতে পারে। আর তাছাড়া যারা নদীতে ডুব দিতে চান না, তাদের জন্য রয়েছে দারুণ কিছু  সুইমিং পুল।

8. লাভ-লক(Love-locks) ব্রিজ আর নেই

আসল নাম পন্ট ডেস আর্টস (Pont des Arts) কিন্তু লোকে লাভ লক ব্রিজ বলেই চেনে। সেইন নদী পারাপারের জন্য এই সেতু ব্যবহার করা হতো।

এমন নামের পিছনে রয়েছে একটি মজাদার কাহিনী। প্রচুর মানুষের বিশ্বাস যে যদি নতুন প্রেমিক জুটি এই সেতুর রেলিং এ নিজেদের নামের প্রথম অক্ষর খোদাই করা তালা লাগাতে পারে, তবে তাদের প্রেম ও জুটি কখনো আলাদা হবে না এই তালাটির মতো।

আর এই ভাবেই, প্রায় সাত লক্ষ তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে হাজার হাজার মানুষ। আর এক সময়, তালার ওজন এমন পর্যায়ে পৌছোয় যে প্যারিস শহরের প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই সেতু ব্যবহারের অযোগ্য বলে ঘোষণা করা হয় ও বন্ধ করে দেয়া হয়। 

পরবর্তীতে প্রায় 45 টন তালা কতৃপক্ষ  পন্ট ডেস আর্টস সেতু থেকে সরিয়ে, ব্রিজটিকে ভালো করে রিমডেলিং করে আবার ব্যবহারের উপযোগী করেছে। 

তবে আপনি এখন আর তালা লাগাতে পারবেন না।

9.প্যারিসের কাছে নিজস্ব স্ট্যাচু অব লিবার্টি  Statue of Liberty আছে ?

আপনি নিশ্চয়ই জানেন যে লেডি লিবার্টির জন্ম হয়েছিল রোমে। সেই সুবাদে ও আমেরিকা ও ফ্রান্সের বন্ধুত্ব প্রদর্শনের জন্য স্ট্যাচু অব লিবার্টির একটি হুবহু তবে একটু ছোটো সংস্করণ প্যারিসে স্থাপন করা হয়েছে।    

 10. প্যারিসের চারিদিকে শুধু ভুত আর আত্মা ?

প্রায় 400 টি মেট্রো স্টেশন আছে প্যারিসের মেট্রো নেটওয়ার্কের। প্রতিদিন হাজার হাজার লোক মেট্রোরেল ব্যবহার করেন।

কিন্তু এতো জমজমাট এলাকায়ও আছে কিছু গোপনীয়তা। এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই।

400 টির মধ্যে অন্তত 14টি  মেট্রো স্টেশন পরিত্যক্ত। অথবা কখনোই ব্যবহার করা হয়নি। কিংবা abandoned হয়ে পরে আছে। সেখানে নাকি দিনে দুপুরে ভুত দেখা যায়। 

আরো মজার ফ্যাক্ট হলো পোর্টে দেস লিলাস স্টেশনটি প্রযোজনা সংস্থাগুলির দ্বারা একটি ফিল্ম সেট হিসাবে ভাড়া দেওয়া হয়।

                    আমাদের সঙ্গে সংযুক্ত থাকতে আমাদের     

                                    ফলো করুন '

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ