If you want to read amazing Facts in english Click here
sponsored

বৃষ্টি সম্পর্কে অবাক করা 12 টি তথ্য ও মজাদার ফ্যাক্ট

অ্যান্টার্টিকা পৃথিবীর সবচেয়ে শুকনো অঞ্চল। বৃষ্টিবিহীন একটি মরুভূমি! আপনি কি জানতেন? আপনি কি জানেন কোথায় বৃষ্টির সঙ্গে সালফিউরিক এসিড পড়ে?


আপনি কি জানেন ? আমাদের পৃথিবীর মতোই অন্যান্য গ্রহে উপগ্রহে ও বৃষ্টি হয়?

আজ আমরা এমনই কিছু অবাক করা বৃষ্টির তথ্য বা ফ্যাক্ট নিয়ে আপনার সঙ্গে উপস্থিত হয়েছি। যে সব মজাদার ফ্যাক্ট পড়ে আপনি আজ অনেক নতুন কিছু জানতে পারবেন ও অন্যদের থেকে নিজেকে আর একটু এগিয়ে রাখতে পারবেন।

অ্যান্টার্টিকা পৃথিবীর সবচেয়ে শুকনো অঞ্চল।  বৃষ্টিবিহীন একটি মরুভূমি! আপনি কি জানতেন? 

আপনি কি জানেন কোথায় বৃষ্টির সঙ্গে সালফিউরিক এসিড পড়ে? 

অথবা আপনার কি জানা আছে কেন পৃথিবীর কিছু অঞ্চলে কেন কখনোই বৃষ্টিপাত হয়না ? 

এরকমই আরো বিস্ময়কর কিছু বৃষ্টির তথ্য বা ফ্যাক্ট নিচে দেওয়া হলো, শুধুমাত্র আপনার জন্য।  তাই পড়তে থাকুন। জানতে থাকুন।

বৃষ্টি সম্পর্কে অবাক করা তথ্য

১. ফ্যান্টম রেইন কাকে বলে ?

পৃথিবীতে এমন কিছু শুষ্কতম ও গরম জায়গা রয়েছে যেখানে বৃষ্টি মাটিতে পড়তেই পারে না! পড়ার আগেই বৃষ্টির ফোঁটাগুলো বাষ্প হয়ে আবার বাতাসে মিসে যায়। এটাকেই ফ্যান্টম রেইন বলে।

২.  জল ছাড়াও বৃষ্টি হতে পারে!

বৃষ্টির প্রধান উপকরণ জল, এটা কোনো নতুন কিছু নয়। কিন্তু সবসময়ই যে এই নিয়ম মেনেই বৃষ্টির আবির্ভাব হবে এমন কোনো কথা নেই। 

জল ছাড়াও বৃষ্টিপাত হতে পারে। এবং এটা মোটেও সখকর নয়।আমাদের কাছের গ্রহ শুক্রতে বৃষ্টিপাত সালফিউরিক এসিড এর হয়। কিছু গ্রহে হীরা বর্ষন হয়। তাছাড়া আমরা এখনো মহাবিশ্বের কটা গ্রহ নক্ষত্রই বা আবিষ্কার করেছি ? আরো অভিনব কিছু যে নেই, তার কি গ্যারান্টি আছে ?

এমনকি, বিজ্ঞানীরা ৫ হাজার আলোকবর্ষ দূরের একটি গ্রহে লোহার বৃষ্টির সন্ধ্যান পেয়েছেন।

৩. পৃথিবীর সবচেয়ে কম বৃষ্টির অঞ্চল অ্যান্টার্টিকা !

অ্যান্টার্টিকা যদিও বরফ দিয়ে ঢাকা, কিন্তু প্রতি বছরে গড়ে এখানে মাত্র 166mm বৃষ্টি হয়  যা আন্টার্টিকাকে মরুভূমির অন্তর্গত করে।

৪. বৃষ্টির কি গন্ধ আছে ?

হ্যাঁ, আপনি বিশ্বাস করুন, বা না করুন, বৃষ্টিরও কিন্তু গন্ধ আছে। যখন বৃষ্টি পড়ে, তখন মাটিতে বসবাসকারী একধরনের জিওসমিন ব্যাকটেরিয়া বাতাসে একরকম কেমিক্যাল ছড়ায়। আর তখনই পেট্রিচোর নামে বাতাসে এক ধরণের গন্ধ তৈরি হয়।

৫. মেঘের রং দেখে কি বৃষ্টির পূবার্ভাস দেয়া সম্ভব ?

সাধারণভাবে বলতে গেলে লম্বা, দমকা কিন্তু উপরের দিকে সমতল আকারের মেঘ অথবা ধূসর রঙের সমতল মেঘ দেখে আপনি নিশ্চিত হতে পারেন যে, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে বৃষ্টি হবে।

৬. আফ্রিকার মুদ্রার নাম বৃষ্টি !

আফ্রিকার বোটসওয়ানায় বৃষ্টির দেখা পাওয়া এতই বিরল যে, তারা তাদের মুদ্রার নাম রেখেছে Pula যার বাংলা মানে বৃষ্টি। সেখানে বৃষ্টি যেমন দুষ্প্রাপ্য, টাকাও তেমন দুষ্প্রাপ্য।

৭. সবচেয়ে বেশি বৃষ্টির রেকর্ড !

দক্ষিণ ভারত মহাসাগরের একটি দ্বীপ লা রিইউনিয়নের ফোক-ফোক-এ ঘূর্ণিঝড় ডেনিসের উত্তরণে একদিনে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে। দিনটি ছিল 1966 সালের 7 থেকে 8 জানুয়ারী পর্যন্ত 24 ঘন্টার মধ্যে প্রায় 1.825 মিটার (71.8 ইঞ্চি) বৃষ্টিপাত হয়েছিল।

৮. বৃষ্টি যেখানে কখনোই থামে না

পৃথিবীর এমন অনেক জায়গাতেই সারা বছর বৃষ্টির দেখা মেলে।যেমন ভারতের মেঘালয় শহরে। আমেরিকার হাইয়াই দ্বীপের Mount Waialeale-তে কখনোই বৃষ্টি থামে না।

৯. বৃষ্টি যেখানে নিত্যসঙ্গী !

ভারতের মেঘালয়ে প্রায় প্রতিদিনই বৃষ্টি হয় যা পৃথিবীর সবচেয়ে আদ্র স্থান হিসেবে বহুদিন আগেই গ্রীনিস বুক অফ রেকর্ডে নাম তুলেছে।

১০. প্রতি বছর মাছের বৃষ্টি

হন্ডুরাসের বিভিন্ন অঞ্চলে প্রতি বছর 'মাছ বৃষ্টি' হয় যা সেখানে Lluvia de Peces নামে পরিচিত।

১১. বিশুদ্ধ জলের প্রধান উৎস বৃষ্টি

বৃষ্টির উপস্থিতি যদি আপনি ভালো না বাসের, তবে বলি আমরা যে  সমস্ত বিশুদ্ধ জলের ব্যবহার করি তার বেশিরভাগই বৃষ্টিপাতের মাধ্যমে আমরা পাই। তাই বৃষ্টিপাত আমাদের জন্য যথেষ্ট উপকারী ও একান্তই প্রয়োজনীয়। তাই বৃষ্টিতে ভালোবাসুন। বৃষ্টির কবিতা লিখুন আনন্দে থাকুন।

১২ . বৃষ্টির ফোঁটা অন্য আকৃতির হতে পারে ?

বৃষ্টির ফোঁটার আকৃতি সাধারনত জলের ফোঁটার (💧) মতো দেখলেও  মাঝে মাঝে বিভিন্ন আকারের বৃষ্টির ফোঁটা পড়তে দেখা যায়। যেমন চ্যাপ্টা, তৃকোনা ইত্যাদি।

আপনার মতামত জানতে আমরা আগ্রহী তাই একটি মন্তব্য করুন, যাতে আমরা এই বিষয়ে আপনার মতামত জানতে পারি।

এই নিবন্ধটি আপনার বন্ধুদের এবং পরিবারের সাথে শেয়ার করুন  তাঁদের এই বিষয়ের জ্ঞান অর্জনে সহায়তা করার জন্য।

আমাদের fb page এ  follow করুন ও আমাদের সঙ্গে যুক্ত থাকুন।

Post a Comment

Middle post ad 01