If you want to read amazing Facts in english Click here
sponsored

ভারতে শুরু হবে মহাকাশ পর্যটন ? কবে জানুন

ভারত সরকারের নতুন উদ্যোগ "তারা প্রেমীদের" জন্য খুবই আনন্দের হতে পারে।

রাতের আকাশে তারা দেখতে কে না ভালোবাসে? কত নক্ষত্র,গ্রহ, উপগ্রহ, ধূমকেতু আরো কত কি?

ঘন্টার পর ঘন্টা কেটে যায় কিন্তু টেরই পাওয়া যায় না!

ভারত সরকারের নতুন উদ্যোগ "তারা প্রেমীদের" জন্য খুবই আনন্দের হতে পারে। কারণ লাদাখের হানলেতে উদ্বোধন হতে চলেছে দেশের প্রথম "নাইট স্কাই স্যাঙ্কচুয়ারি অর্থাৎ রাতের আকাশ দেখার একটি উদ্যান। 

সাম্প্রতিক সময় দেখা যাচ্ছে, পর্যটকদের মহাকাশ পর্যবেক্ষণ নিয়ে দারুণ উৎসাহ বাড়ছে।

কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিংহ এই বিষয়টি খেয়াল করেছেন। এবং লাদাখের পর্যটকের ভিড় কে কাজে লাগিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার তৈরি করতে চাচ্ছে এরকম একটি উদ্যান যা সাধারণ মানুষের আরো বেশি করে দৃষ্টি আকর্ষণ করবে। এবং লাদাখের পর্যটকদের আরো বেশি করে আকৃষ্ট করবে।

চাংথাং অভয়ারণ্যের একটি বিশেষ জায়গায় লাদাখের হ্যানলেতে নাইট স্কাই স্যাঙ্কচুয়ারি চালু হবে। থাকবে অপটিক্যাল, ইনফ্রারেড ও গামা-রে সম্পন্ন টেলিস্কোপ।

ভারত সরকারের মতে, এর ফলে ভারতীয় পর্যটনে একটি নতুন দিক খুলে যাবে। এবং তার নাম দেওয়া হচ্ছে মহাকাশ পর্যটন।

অতিসম্প্রতি লাদাখের উপরাজ্যপাল রাধাকৃষ্ণ মাথুরকে কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী গোটা বিষয়টি জানিয়েছেন। আর তখনই প্রকাশ্যে আসে এই প্রকল্প।

লাদাখ কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের প্রশাসন, লাদাখ অটোনমাস হিল ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিল এবং ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব অ্যাস্ট্রোফিজিক্স এর একটি ত্রিপাক্ষিক চুক্তি সাক্ষর হয়েছে।

এই উদ্যোগে এত জোর দেওয়ার কারন হল, স্থানীয় পর্যটনে উৎসাহ ও বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রয়োগে আর্থিক উন্নয়ন।

এবং মহাকাশ পর্যটনের ফলে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হবেন স্থানীয় বাসিন্দারা। সামগ্রিক ভাবে এই অঞ্চলের অর্থনৈতিক উন্নতি হবে।

 মহাকাশ পর্যবেক্ষণের স্বাভাবিক ভাবেই প্রচুর বাধা রয়েছে। আর সবচেয়ে বড় সমস্যা হল দূষণ। তাই সংশ্লিষ্ট সব পক্ষই হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করবে বলে দাবি করেছে। সঙ্গে রাতের আকাশকে দূষণের হাত থেকে রক্ষার চেষ্টা করবে।

বলে রাখি, হ্যানলে লাদাখের মরুভূমির শীতল অঞ্চল। হ্যানলের আকাশ সাধারণত পরিষ্কারই থাকে। কেন্দ্র সরকারের আশা, যাঁরা গ্রহ, তারা, ধূমকেতু, গ্রহাণু-সহ মহাজাগতিক বস্তু ও ঘটনা দেখতে চাইবেন, তাঁদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় হবে এই জায়গা।

কেমন লাগলো কমেন্টে জানান, এবং বন্ধু ও পরিবারের সঙ্গে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের facebook page লাইক করে সঙ্গে থাকুন।


Post a Comment

Middle post ad 01